Skip to main content



চারটি মুহূর্ত - পৌলমী গুহ


সাম্য, মৈত্রী ও প্রেম
আমি সাম্যের গান গাহি নাই।
অর্থাৎ, চায়ের দোকানি
বাসের কনডাক্টর ও রিক্সাচালক বলে,
ব্যর্থ কাউকে টিজ্ করি।
নিজেকে আদর্শবাদী ভাবি,
বাকি সব গোরুচোর।
ছিক্ করে রাস্তায় থুতু ফেলি,
আর নিজের চেয়ে যারা ওপরে থাকে-
সর্বনাশ কামনা করি।
অনেকটা প্রেমেরই মতো!



নিশীথে বেদনা জাগে
ধড় খুলে ফেলি প্রতিরাতে।
সান্ত্বনা দিই আর স্রেফ ক’টা দিন,
অথবা মাস। বছরও।
প্রেমজ বিষাদ নাভিতে চুমু খায়।
এতোদিনে মনে পড়ে,
তোমার স্খলনে আমার জিত মিশেছিল।



কারা যেন ফিরে এলো
টেবিলে খাম খোলা।
চিঠিদের গায়ে পুরনো ঠিকানা।
ধুলো জমেছে স্মৃতিতে।
একটা মস্ত প্রজাপতি বারবার,
বারবার উড়ে এসে বসে।
মনে পড়ে গেলো,
সানাইয়ের ব্যথা তুমি আজও বোঝোনা!



শেষ থেকে আরেকবার
ডার্লিং! তোমার সাথে আজ নাহয় কাল,
দেখা তো হবেই।
ঘোরানো সিঁড়ি বুক চিরে নেমে গেলে,
তোমার চিবুক থেকে বিষাদতরল
মুছিয়ে দেবো তো?
ডার্লিং আমি পাপোশ হবো না প্লিইজ!
আমায় তোয়ালে বানাবে না?


পৌলমী গুহ
Poulami Guha

Comments

Like us on Facebook
Follow us on Twitter
Recommend us on Google Plus
Subscribe me on RSS