Skip to main content

Posts

Showing posts from January 6, 2019



চারটি মুহূর্ত - পৌলমী গুহ

সাম্য, মৈত্রী ও প্রেম আমি সাম্যের গান গাহি নাই। অর্থাৎ, চায়ের দোকানি বাসের কনডাক্টর ও রিক্সাচালক বলে, ব্যর্থ কাউকে টিজ্ করি। নিজেকে আদর্শবাদী ভাবি, বাকি সব গোরুচোর। ছিক্ করে রাস্তায় থুতু ফেলি, আর নিজের চেয়ে যারা ওপরে থাকে- সর্বনাশ কামনা করি। অনেকটা প্রেমেরই মতো!


নিশীথে বেদনা জাগে ধড় খুলে ফেলি প্রতিরাতে। সান্ত্বনা দিই আর স্রেফ ক’টা দিন, অথবা মাস। বছরও। প্রেমজ বিষাদ নাভিতে চুমু খায়। এতোদিনে মনে পড়ে, তোমার স্খলনে আমার জিত মিশেছিল।


কারা যেন ফিরে এলো টেবিলে খাম খোলা। চিঠিদের গায়ে পুরনো ঠিকানা। ধুলো জমেছে স্মৃতিতে। একটা মস্ত প্রজাপতি বারবার, বারবার উড়ে এসে বসে। মনে পড়ে গেলো, সানাইয়ের ব্যথা তুমি আজও বোঝোনা!


শেষ থেকে আরেকবার ডার্লিং! তোমার সাথে আজ নাহয় কাল, দেখা তো হবেই। ঘোরানো সিঁড়ি বুক চিরে নেমে গেলে, তোমার চিবুক থেকে বিষাদতরল মুছিয়ে দেবো তো?

অলভ্য ঘোষের একটি বাংলা অডিও বুক

তাঁবুঘর.কম সবসময়ই চেয়ে এসেছে, নতুন যারা ভাবছেন, তাঁদের কাজ পাঠক, শ্রোতা বা দর্শকদের সামনে তুলে আনতে, ওয়েবসাইটেও এ জন্যেই এ কথাটাই লেখা আছে, আপনাদের নিজস্ব ভাবনা কোনরকম দ্বিধা না রেখে পাঠিয়ে দিন। সে ওপেন কল-এ সাড়া দিয়ে অনেকেই লেখা পাঠিয়েছেন এর আগে, ছবি পাঠিয়েছেন, নিজেদের ভালো কাজগুলি পাঠিয়েছেন, সেরকমই তাঁবুঘর তুলে ধরছে এই কাজটি। এটি একটি অডিও বুক, এবং, শুধু গড়গড় করে পড়ে যাওয়া অডিও বুকে এই কাজটি আটকে থাকেনি। অলভ্য ঘোষ কে আমি চিনিনা তিনি হয়ত দেখেছেন কোথাও তাঁবুঘর। তাঁবুঘরের ওপেন কল-এ সাড়া দিয়েছেন। তাঁর পাঠানো প্রথম গল্পটি পেয়ে আমি চমকে উঠি। অদ্ভুত এক ভাষায় লেখা সে গল্প। যেন বাংলা ভাষায় লেখা হচ্ছে একটা ডাচ গল্প। অনুবাদ নয় কিন্তু। সে লেখাটি অন্য এক ওয়েব ম্যাগাজিনে আছে। তাই এখানে সে গল্প থাকল না আর কিন্তু আমি এই ভদ্রলোকের কাজ নিয়ে খুবই চমকে ওঠায় খোঁজ করতে শুরু করি। এবং পেয়ে যাই তাঁর নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল। সে চ্যানেলে তিনি অজস্র গল্প পাঠ করছেন। চমক ততক্ষণে ভালোলাগায় পরিণত হয়েছে। তারই মধ্যে ঘুরতে ঘুরতে পেয়ে যাই এই কাজটি। ভালোলাগা ট্রান্সফর্ম হয় ভালোবাসায়। বাংলা ভাষায় শুধু নয়, বিশ্বের নিরিখেও এর…
Like us on Facebook
Follow us on Twitter
Recommend us on Google Plus
Subscribe me on RSS