Imran Firdaus


মানুষের বাগানে তুমি এক ভীত ফুল
নাম-গুমের বাগানে আর কতকাল তুমি দিয়ে যাবা ভয়ের চারা গাছে জল।
সেই গাছের ডালে ডালে এখন ঝোলে 'ভয়'নামক অদৃশ্য টশে ফল...
এই ফলটি তুমি পারো খেতে একা একা দরজা বন্ধ করে।
কিন্তু,'ভয়'যে আজ তোমায় খাচ্ছে- চলতে-ফিরতে-উঠতে-বসতে-প্রেমে-অপ্রেমে-বিশ্বাসে-নিঃশ্বাসে...
সত্যি,তোমার ইচ্ছে করে না- সুন্দরবন বা রুপপুর বা লাউয়াছড়ার গাছগুলো না কেটে ওই 'ভয়নামক বটবৃক্ষের সমূল উৎপাটন করতে!?
বিদেশি প্রেসক্রিপশনের লিডারশীপ ওয়ার্কশপ করা তোমার মন কেন কুঁকড়ে যায় না সংখ্যাতাত্ত্বিক উন্নয়ন সন্ত্রাসে!?
জঙ্গীবাদ/মৌলবাদ/জাতীয়তাবাদের বাণিজ্যে দেশপ্রেম’ কী শুধুই জাদুঘরে দেখা প্রাগৈতিহাসিক ফুল!?
নিজেরে জিজ্ঞাসিও বন্ধু আজ এই দাহকালে।।




আধেক ঘুমে নয়ন চুমে
মেমোরি বেকারীতে
সকাল সকাল
মৌতাত ছড়াচ্ছে
হট বেকড উদাসীনতা
হায়! মনোরমা
চেয়েছিলে প্রেমের দাস হতে
আর গিফট দিয়ে গেলে আর্বান উদাসীনতা




. আমার হিয়া কাঁপে
হায় কি অদ্ভুত এই প্লাস্টিক জীবন! সেমতি কি নিষ্করুণ এই প্লাস্টিক এই জীবন! সিন্থেটিক এই নগরীতে কেউ কারো নয় যতক্ষণ না কারো ঘাড়ে রোঁ পড়ে
সম্পর্ক সে তো দূর নীহারিকা। স্বার্থের প্রশ্নে কোন অর্গ্যানিক ক্ষমা নেই; আছে শুধু নির্নিমেষ আদেশনামা।
হায় এই ভাড়াটে জীবন! সুলভ মূল্যে বিকিকিনির বাজার থেকে এক মন-পাসান্দ জীবনের জামা ভাড়া নিয়েছি। হ্যাঁ! তা হয়তো সুখী মানুষের জামা নয়...কিন্তু নির্ঘাত তা সুখী মানুষের পছন্দ না হলেও সংগ্রহে রাখার মত এক জামা! তবে, কেমন করে যেন...কপালে সেই জামার সাইজ/ট্যাগ বুলেটের মত বিঁধে গেছে কপালে!!!
বেশ! এখন তব কি উপায়!
কী পন্থায় ভুলে থাকা সম্ভব, নির্দিষ্ট বিনিময় হারের মধ্যে দিয়ে প্যারোলে বেঁচে থাকা জীবনের স্বাধীনতার আস্বাদ!
হায় স্বাধীনতা! ইলিশ-ইলিশ স্বাধীনতা!
তুমি কী কেবলই এক সাগর রক্তের হাঙর-নদী-গ্রেনেড। যেখানে জীবন মানেই শর্তসাপেক্ষে স্বাধীন জীবনের বিনিময়ের পরাধীনতার আস্বাদ হজম করার অ(ন)ভিজ্ঞতা!
ওহে স্বাধীনতা! লাখে লাখে আসাদের রক্তভেজা শার্ট তোমার ঠিকানায় ডাকমাশুল দিয়ে পাঠানোর পরও কেন ফিক্সড করা হয়ে উঠে না সম্ভাব্য (আ)মোদের ডেটিংয়ের শিডিউল!!!








   ইমরান ফিরদাউস
Imran Firdaus