Jyotirmoy Shishu

Jyotirmoy Shishu

Sayan Ghosh

সমাধিক্ষেত্রে গুন গুন প্যারেড

১.
গ্রীষ্মের উপাদানগুলি পায়ে করে নিয়ে যাচ্ছে
কয়েকটি পায়রার দল
দু-একটি চিঠি মৃত ছেলের প্রতি
পূর্ণত অন্তিম যাত্রা
মর্গের বাতাস এতটাও আপেক্ষিক নয়
ভীতচকিত হাওয়া ঝড়ের বেসিনে তোলপাড় বিস্কুট
বমি হয়ে যাওয়া গতকালের রাতের খাবার
তাতে মাথা নাড়াচ্ছে
একটি আরশোলা

২.
অদৃষ্ট !
আমার চোখ বন্ধ করে দিচ্ছেন ক্যানো ?
সমস্ত দেখে ফেলছি বলে ?

৩.
রাষ্ট্র আমার মাথার দাম ঘোষণা করবে
নিলাম চড়বে এসকেলটরে
যাবতীয় বক্তব্য
মূল্যবৃদ্ধির আশঙ্কা এখন না করাই ভালো

৪.
সুতোয় ঝোলানো মাদুলি'টা ফেলে দিলেই পারতে
অজস্র পাপবোধ একেবারে চলে যেত





এক্স রে প্লেট ৪

এভাবেই শেষ হয় কিছু কিছু নেশাড়ু রাত যেখানে হাত বাড়িয়ে কিছু খোঁজার অব্যর্থ চেষ্টায় কলঙ্কিত জামার ডিজাইন পকেটে সীমাবদ্ধ যত বাঁধানো বিড়ি আগুনের স্ফুলিঙ্গে ত্বকরন্ধ্র জাগরণ শরীরি ছন্দে শহীদবেদী মনে হয় নিজেকে নিদেনপক্ষে ত্বক থেকে চামড়া থেকে লোম থেকে পুরুষ ও নারী উভয়পক্ষ বায়ুমন্ডলের লাফালাফি ভেদ করে মাংসল ভূগর্ভে হঠাৎ পেচ্ছাপ লজ্জায় আংশিক নিমজ্জিত কোনো লম্বা পুংলিঙ্গে টানটান উত্তেজনা নিয়ে তিন হাত উঁচু পাঁচিল টোপকে খোলা ময়দানে চিৎ হয়ে শুয়ে গড়াগড়ি খাওয়া যেতে পারে কিন্তু কতগুলি কবিতা লিখেছি মনে করতে পারছি না বরং নীচু হয়ে খুঁজছি প্লাস্টিক প্রেমিকা'কে; জাহ্নবী'কে এখনও খুঁজছি বিছানায় পেতে চাইছি সীমাহীন যৌনতা সমেত একগোছা লাল গোলাপ হৃৎপিন্ড ঠাণ্ডা যত রক্ত ধমনীর হিমেল রেফ্রিজারেটার মধ্যে থেকে বেড়িয়ে আসে কবির ন্যারেটিভ কঙ্কাল আর আমার হিমোগ্লোবিনের স্বাভাবিক রং বেগুনি।




চামড়ার কাছাকাছি

কলমের বলিরেখা থেকে কার্তুজ এক কদর্য বাসভূমি পেটে নিয়ে আস্ত একটা চাঁদ প্রসব করতে কোনো সমীকরণ কার্যকর হয়নি এখনও আমার হাতঘড়ি চুরি হয়ে গ্যাছে যেদিন ডাইনিঙে আমি বিছানা পেতে প্রকাণ্ড মাস্তান এক জলবিদ্যুৎ প্রকল্পে উদ্দাম ডানা ম্যালা এক সফেদ অপ্সরার পাছা দেখে ফেলে খিল্ খিল্ শব্দবৃন্দ আমার চেক্ গামছায় বীর্যের ফোঁটায় এখন আমার একটা মেয়েছেলে চাই সঙ্গমকালীন কবিতা পাঠ জয়েন্টের বাড়তি সলতে টুক্ করে দাঁতে কেটে ফ্যালার পরের প্রস্তুতি আপেক্ষিক কিনা বলতে পারবো না আমার পার্ট থ্রি পরীক্ষার এক্সামিনারের বুক কতটা উঁচু হবে আমি আন্দাজ করতে পারছি না ঠিক অবশ্য জাপানের কাছে ক্ষমা চাননি ওবামা আসলে আমি ছাত্র পড়াতে গিয়ে নিজেই পড়ে ফেলি কারণ নক্ষত্রেরা আমায় একটাকাও ধার দ্যাননি সুতরাং আমাকে একটু বাংলা দিন। তেত্রিশ টাকা নিব্।








   সায়ন ঘোষ


Sayan Ghosh