Jyotirmoy Shishu

Jyotirmoy Shishu

Sk Saddam Hossain


সংসারী
একটা গাছ
সে
 যতটা মাততটাই বাবা


মনখারাপ
মায়ের রান্না খেয়ে বুঝতে পারি

বাবা আজ
একমাসের
 জন্য কাজের শহরে চলে যাবেন আবার


জানালা
কতোটা পালাতে পারবো জানি না

ওই যে দ্যাখা যাচ্ছে,একটা বাতাবিলেবু গাছ ছেলে কোলে নিয়ে উনুন ধরাচ্ছে
ওর
 শিকড় পর্যন্তই আমার ইবাদত


অসুখ 
ভালো থাকতে চাইছো বলেইভুলে থাকছো সব

অথচ তুমি জানোই নাবাবার জন্মদিন ভুলে গেছো বলে
কোনো
 অসুখ তোমায় ক্ষমা করেনি কোনোদিন



আজনবি
আজনবি এক দুপুরের মাঠে সকলেই ধানশীষ কুড়াতে এসেছি

ডিসেম্বররঙের একটি মেয়ে শান্ত চেয়ে থাকেদূরে...ভাবছেএকজন ঠিক মুঠোভর্তি পরমান্ন নিয়ে ফিরে আসবে তাঁর পর্দার নুপুরে


ভবিতব্য
খুচরো বিকেল ঠেস দিয়ে আছে জোড়া শালিক

ওরাও জানেএকমাত্র রান্নাঘরই ঠিক রে দেবে
কে
 কোথায় খেতে বসবে

দুদিন পর..


শুরু 
শেষ বলে কিছু নেই
এই উপত্যকার প্রান্তে পা ঝুলিয়ে বসে আছে নগদ সন্ধ্যা

বিষণ্ণতাকে সে ভালোবাসে বলেঘর বাঁধবে না কোথাও



তসবির

পিচ্ছিল ঘাট নাদাঁড়কাক নেই
তোমাকে সাবান মাখাচ্ছে
যৌন-চিন্তা

একটা তসবির বেজে উঠছেদোতারায়
 ভরদুপুর বয়ঃসন্ধি পেরিয়ে তুমিও
চুরি করতে পারছো
পুরুষ

আঙুল দিও না ঘেঁটে যাবে জল
যাওস্নান নিয়ে বাড়ি যাও

আমাদের কোনো শাখা নেই




সিনেমাওয়ালা

সমুদ্রের কাছে এসে
সমস্ত পুরুষ একে একে নায়ক হয়ে উঠছে

ভাঙা টেলিফোন পড়ে রয়েছে বালির চরে
কারো ফেরার কথা ছিল সেই রাত
আসেনি..

একটু পরেই জাল উঠবে
কতকগুলি কাক নৌকার উপর অপেক্ষা করে আছে
ডিরেক্টার শট্ রেডি করেওটুপিটা হাতে নিয়ে
মিলিয়ে গেলেন দূরের বিকেলে

সেই রাতের জন্য তাঁর আজও মনখারাপ

   








  সেখ সাদ্দাম হোসেন

Sk Saddam Hossain