Rahamatullah Alamgir

পশ্চিমবঙ্গের বাংলা’ নামগ্রহণে সংশয়গ্রস্থরা ছুপা-ফ্যাসিস্ট

নিপীড়িতদের ফ্যাসিস্ট ও মৌলবাদি সংস্কৃতি লালন করা অনাহুত কিছু নয়। সম্প্রতি হাতেনাতে ধরা-পরা এর একটা উদাহরণ পাওয়া গেলপশ্চিমবঙ্গের 'বাংলানাম গ্রহণে বাংলাদেশের কিছু মানুষের সংশয় ও ব্যাঙ্গ প্রকাশের মধ্যে। তারা বলছেনএতে আমাদের জয়বাংলা’ বা আমার সোনারবাংলা’- ইত্যাদি ধ্বনিমালাসমূহ নাকি আত্মসংকটে পড়লো। প্যাটেন্টগত বাণিজ্যিক বিপদের কথাও বলছেন কেউ কেউ।

এ ধরণের কূপমণ্ডুক চিন্তার ক্রিটিক করার রুচি আমার অল্প। তাই সেদিকে তেমন যাব না। ঐতিহাসিক সৌভাগ্যবশত পূর্ববাংলার লোকেরা বাংলার অর্ধেক ভূখণ্ড নিয়ে বাংলাদেশ’ নামে রাষ্ট্র গঠন করেছে। এখনপঞ্চাশ বছর পর বাকি অর্ধেক বাংলা যদি তাদের রাষ্ট্র বা প্রদেশের নাম 'বাংলাবা 'বাংলাদেশ'ই রাখে- এতে আপত্তিভয়সংকট বা দুরভিসন্ধি খোঁজা প্রকৃতপক্ষে একটা অগণতান্ত্রিক ইচ্ছা। অর্থাৎআপনার বাংলাচিন্তা’ প্রকল্প থেকে আপনি পশ্চিমবঙ্গকে বাদ দেয়ার মতো কবিরা গুনা করছেন। পূর্ববঙ্গের লোকেরা পহেলা রাষ্ট্র গঠন করতে পেরেছে বলে বাকি অর্ধেক জনগোষ্ঠীর সঙ্গে তারা এই খবরদারি করতে চাচ্ছে। মনে হয়বাংলা যেন তাদের একার! বাকি বাংলা’ ভাইসা আইছে।


এনারা পশ্চিমবঙ্গকে বাংলার ওনারশিপের অংশ থেকে বঞ্চিত করতে চাচ্ছেন কেনতারা এখনো প্রদেশ রয়ে গেছেরাষ্ট্র গঠন করতে পারে নাইএই জন্যঅথবাতারা লোকাল সাম্রাজ্যবাদ ভারতের অংশএই কারণে কীকিংবা ধরেনতার বাংলা’ নাম গ্রহণে এরা যেসব আপত্তি বা সংশয় আবিষ্কার করেছেঅর্থাৎ বাংলাদেশের ভাবের সংকটসাংস্কৃতিক ও বাণিজ্যিক কপিরাইট ফয়সালার সমস্যা। তোআপনার এসব ক্রাইসিসের কারণে পশ্চিমবঙ্গের বাংলা’ নাম গ্রহণের গণতান্ত্রিক ন্যায্যতা অস্বীকার করা যায় নাকি! আমি বরংপশ্চিমবঙ্গের অধিবাসীরা তাদের প্রদেশের নাম শুধু বাংলা’ না করে বাংলাদেশ’ বা বাংলাপ্রদেশ’ করলো না কেনএই প্রশ্ন তুলতে চাই। পশ্চিমবঙ্গের নাম বাংলাদেশ/ বাংলাপ্রদেশ রাখার স্পর্ধা করতে না পারাটা তাদের হীনমন্যতা বা পরাজয় মানসিকতার উদাহরণ হিসেবে দেখতে পাই। রাষ্ট্রের নামের ক্ষেত্রে একই-নাম রাখা ওয়েব-দুনিয়ার ডোমেইনগত সীমাবদ্ধতার মতো বটেপ্রদেশের নাম বাংলাদেশ/ বাংলাপ্রদেশ রাখায় সে সমস্যা ছিল না। শুধু বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অগ্র-অস্তিত্বের কথা বিবেচনা করে বেচারা পশ্চিমবঙ্গের লোকেরা এই বঞ্চনা মেনে নিয়েছে। কলোনি ভারতের সবচেয়ে অগ্রসর অঞ্চল হয়েও নিজেদের রাষ্ট্র গঠন করতে না পারার ব্যর্থতা থেকেই তারা এই সাহস দেখাতে সক্ষম হয়নিজ্বলুনি থাকলেও একই-নাম গ্রহণের সাইডিফেক্ট পোহাতে মর্জি করেনি। তাইশুধু বাংলা’ নামটুকু গ্রহণ করায় তাদের ধন্যবাদ দেয়ার বদলেমামাবাড়ির আপত্তি তোলাটা পূর্ববঙ্গের কিছু মানুষের হীনমন্যতাজাত লুক্কায়িত ভারত জুজুপ্রীতির বেশি কিছু না।

যারা এসব আপত্তি তুলেছেনখেয়াল করে দেখবেনতারা সকলে ঢাকার প্রতি কলকাতার কর্তৃত্ববাদের সমালোচকবাংলাদেশের প্রতি ভারতের প্রভুগিরির সমালোচকসর্বোপরি বাংলাভাবের প্রাউডেস্টউচ্চকিতজন। এহেন দেশপ্রেমিকেরাযারা বাংলাদেশের অধিকার নিয়ে সোচ্চারতারাই পশ্চিমবঙ্গকে তার ন্যায্য ওনারশিপের অংশ দিতে কুণ্ঠিত! এটাই হলো ঢাকার বাঙালি জাতীয়তাবাদের ফ্যাসিস্ট চেহারার সম্প্রসার। এই আপত্তি-ওয়ালারা বাংলামৌলবাদি।


ধরেনএই আপত্তি নিয়ে আপনি যদি জাতিসংঘের দারস্থ হনতাহলে বাংলাদেশকে পূর্ববাংলাআর বাংলাকে পশ্চিমবাংলা’ নামে ফিরে যেতে হবে। মজারাছেতাই নাশোনেনঅর্ধেক বাংলা নিয়ে 'বাংলাদেশনাম গ্রহণ করাটাই তো আপনার বেআইনি হয়েছে। পুরো ভূখণ্ড নিয়ে রাষ্ট্র গঠিত হলেই কেবল তার নাম 'বাংলাদেশহতে পারে। তার আগে আপনি কেবলই পূর্ববাংলাআপনি পশ্চিমবাংলাই আসলে। 
০১/ ০৯/ ২০১৬


রহমতুল্লাহ আলমগীর

Rahamtullah Alamgir